করোনা জয়ী নেইমার ফিরলেন পিএসজির অনুশীলনে

করোনামুক্তির খবরটি টুইটারে দিয়েছেন নেইমার। করোনা থেকে মুক্ত হওয়ার খবরটি নেইমার একটু নাটকীয়ভাবেই দিয়েছেন। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আমি অনুশীলনে ফিরেছি। দারুণ খুশি, করোনাআউট!’

করোনা জয়ী নেইমার ফিরলেন পিএসজির অনুশীলনে
নেইমার।

মৌসুম শেষ হওয়ার পর ছুটি কাটাতে ইবিজায় গিয়েছিলেন পিএসজির বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়। সেখানে নেইমার একটি পার্টিও দেন। কিন্তু ছুটি কাটিয়ে প্যারিসে ফিরে অনেকেই পেয়েছেন দুঃসংবাদ—তাঁরা করোনা আক্রান্ত।

নেইমারের সঙ্গেই ইবিজাতে থাকা অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া ও লিয়ান্দ্রো পারেদেসেরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিল পিএসজি। সেই সময় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এসেছে যে মাউরো ইকার্দি, কেইলর নাভাস ও মারকিনিওসদেরও করোনা হয়েছে। এঁদের মধ্যে নেইমারই প্রথম করোনামুক্তির খবর দিয়েছেন।

করোনামুক্ত হয়ে অনুশীলনে ফিরেছেন, এবার ভালোভাবে ফুটবলে মনোযোগ দিতে পারবেন গত মৌসুমে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান জয়ী নেইমার। লিগ চ্যাম্পিয়ন হলেও গত মৌসুমে পিএসজিকে স্বপ্নের চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতাতে পারেননি ব্রাজিলিয়ান তারকা। প্যারিসের অভিযান শেষ হয়েছে ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ১-০ গোলে হেরে। তবে নতুন মৌসুমে দলটিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানোর প্রতিজ্ঞা করেছেন নেইমার।

করোনা জয়ী নেইমার ফিরলেন পিএসজির অনুশীলনে
নেইমার।ফাইল ছবি

করোনাজর্জরিত পিএসজির ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের শুরুটা হয়েছে গতকাল লাঁসের কাছে হেরে। এই ধাক্কার পর দিনই প্যারিসের দলটিকে একটি সুখবর দিয়েছেন নেইমার। করোনামুক্ত হয়ে অনুশীলনে ফিরেছেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

লিগে পিএসজির পরের ম্যাচটি শক্তিশালী মার্শেইয়ের বিপক্ষে। করোনামুক্ত হয়ে অনুশীলনে ফিরলেও শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে নামা পিএসজির হয়ে আগামী পরশুর এই ম্যাচে নেইমার খেলতে পারবেন কি না তা এখনো জানা যায়নি। শেষ পর্যন্ত যদি নেইমার খেলতেই না পারেন তাহলে এই ম্যাচেও হয়তো পিএসজিকে নামতে হবে দ্বিতীয় সারির একাদশ নিয়েই। লাঁসের কাছে হেরে যাওয়া ম্যাচে খেলতে পারেননি নিয়মিত একাদশের ডি মারিয়া, নেইমার, এমবাপ্পে ও পারেদেসরা।

২০১৭ সালে বার্সেলোনা থেকে ট্রান্সফার ফির বিশ্ব রেকর্ড গড়ে পিএসজিতে নাম লেখানোর পর থেকে প্রায় প্রতিটি দলবদলের বাজারেই নেইমারের দল ছাড়ার গুঞ্জন শোনা যায়। গত বছর তো যেকোনো মূল্যে আবার বার্সেলোনায় ফিরতে চেয়েছিলেন। এ নিয়ে পিএসজি সমর্থকদের রোষানলেও পড়েছিলেন। এমনকি ঘরের মাঠের ম্যাচেও নিজেদের সমর্থকদের কাছ থেকে দুয়ো শুনেছেন নেইমার।

এরপর প্রায় পুরো মৌসুমেই দুর্দান্ত খেলে আবার জয় করে নিয়েছেন পিএসজি সমর্থকদের মন। দলকে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে তোলায় বড় ভূমিকা রাখায় তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন অনেকেই।

নতুন মৌসুমে নিজের পরিকল্পনার জানাতে গিয়ে বলেছিলেন, ‘আমি এখানেই থাকছি। এ মৌসুমে আবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে খেলতে চাই। আর এবার শিরোপাও জিততে চাই।’ এটুকু বলেই থেমে থাকেননি নেইমার। পিএসজি ছাড়ার আগে বসতে চান ক্লাবটির কিংবদন্তির আসনে, ‘এই ক্লাবের ইতিহাসে নিজের নামটি লিখিয়ে নিতে সবকিছুই করতে চাই আমি।’

সমর্থকদের ভালোবাসা আবার ফিরে পেয়ে খুশি নেইমারও। এবারের দলবদলের বাজারে আর নেইমারকে নিয়ে গুঞ্জন নেই। সেটা থাকবেই বা কী করে! মৌসুম শেষ হতে না হতেই জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি পিএসজিতেই থাকবেন। প্যারিসে সুখেই আছেন।

স্টাফ রিপোর্টার/বে অব বেঙ্গল নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *