পাল্টে যাওয়া দলীয় সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ জোহরা বেগম

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে (২০২০) সংরক্ষিত মহিলা আসন-৩ (ওয়ার্ড ৭ ও ৮) এ আওয়ামী লীগের সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী পরিবর্তন করা হলেও দলীয় সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ জোহরা বেগম।
পাল্টে যাওয়া দলীয় সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ জোহরা বেগম
পাল্টে যাওয়া দলীয় সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ জোহরা বেগম

গত ১৯ ফেব্রুয়ারী চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। পরবর্তীতে সমর্থিত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠলে সংরক্ষিত তিনটি আসনে প্রার্থী পরিবর্তন করা হয়। সংরক্ষিত-৩ আসনে জোহরা বেগমের পরিবর্তে সাবেক কাউন্সিলর জেসমিন পারভীন জেসিকে দলীয় সিদ্ধান্তে সমর্থন দেওয়া হয়। গত ৮ মার্চ সার্কিট হাউজে বৈঠকে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতারা এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

এদিকে দলীয় সিদ্ধান্তে সমর্থন পরিবর্তন করা হলেও একই সাথে দুজন প্রার্থী’ই নিজেদের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বলে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জোহরা বেগম বলেন, ‘এটা পরিবর্তন করা হয়নি। এখানে পরিবর্তন করার কথা ছিলো একজন। এখানে হাসিনা মহিউদ্দিনের যে এগারো জন কাউন্সিলর কেন্ডিডেট তার মধ্যে শুধু দলীয় সিদ্ধান্তে একজনকে পরিবর্তন করার কথা ছিলো বয়সের কারণে। আর কোন পরিবর্তন করার কথা ছিলো না। এখন যদি কেউ ষড়যন্ত্র করে আমাদের নাম বাদ দেয় আমরা সেটা কখনোই মানব না।’

কারা ষড়যন্ত্র করছে জানতে চাইলে, তিনি প্রতিপক্ষ ম্যাডাম টাকার বিনিময়ে ষড়যন্ত্র করছে বলে দাবি করে। টাকা দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সমর্থন পরিবর্তন করা সম্ভব কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ আরেহ ভাই, বাংলাদেশে টাকা থাকলে সবই সম্ভব।’

এছাড়াও তিনি আরো বলেন, ‘যতক্ষণ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ লিখিত চিঠি দিবে না এবং আমার নেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন বলবে না ততক্ষণ আমি মানবো না। ততক্ষণ পর্যন্ত আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার সমর্থিত একক প্রার্থী।’

আওয়ামী লীগের চসিক নির্বাচন পরিচালনা কমিটি-২০২০ এর প্রধান সমন্বয়ক ও চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের সিদ্ধান্ত মানা নিয়ে প্রশ্ন করলে উত্তর না দিয়ে তিনি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

এদিকে এ ব্যাপার জেসমিন পারবেন জেসির সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বে অফ বেঙ্গল নিউজকে জানান,’ ২৫ বছর ধরে আমি রাজনীতি করি। দুইবার কাউন্সিলর ছিলাম। শ্রম, ঘাম ঝড়িয়েছি। আপনারা জনগণ থেকে জিজ্ঞেস করেন তারা কাকে চায়। এছাড়াও আপনি নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা আমাদের শ্রদ্ধেয় নেতা মোশাররফ ভাই এর সাথে কথা বললেই আপনারা ক্লিয়ার হবেন দল কাকে সমর্থন দিয়েছে।’ জোহরা বেগমের রাজনীতির বয়স কত এই প্রশ্নও রাখেন জেসি।

উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ চসিক নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মহামারীর কারণে তা স্থগিত করা হয়। প্রায় দশ মাস পর চসিক নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২৭ জানুয়ারি উক্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী এবং ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডাক্তার শাহদাত হোসেন অংশগ্রহণ করবেন।
এম সি এম / বে অব বেঙ্গল নিউজ / bay of bengal news

Comments are closed.