বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পদ্ধতি ঠিক হয়নি এখনও

ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলেও কিভাবে নেওয়া হবে তা এখনও ঠিক করতে পারেনি কোন বিশ্ববিদ্যালয়। ক্যাম্পাসে স্ব-শরীরে পরীক্ষা নেওয়া কে বেশি যৌক্তিক মনে করলেও অনলাইনের সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিচ্ছেনা বুয়েট। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভাবছে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার কথা।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পদ্ধতি ঠিক হয়নি এখনও
প্রতীকী চিত্র।

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনলাইনের ক্ষেত্রে কারচুপি ঠেকানোটা চ্যালেঞ্জ হতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার রেওয়াজ পুরনো। করোনা মহামারী অনেক হিসাব-নিকাশ পাল্টে দেওয়াতে প্রশ্ন উঠেছে এবারও তা মনে হবে কিনা? এইচএসসি পরীক্ষার সমন্বিত ফল পাওয়া যেতে পারে ডিসেম্বর নাগাদ। তাই এখন থেকেই নড়েচড়ে বসেছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। ভাবছে ক্যাম্পাসগুলোতে স্ব-শরীরে পরীক্ষা হবে নাকি অনলাইনে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) বলছে, তারা স্ব-শরীরে পরীক্ষা নেওয়াটা যৌক্তিক ভাবছেন। তবে অনলাইনের বিষয়টিও উড়িয়ে দিচ্ছেন না।

এছাড়া বুয়েটের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক মিজানুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, যদি অনলাইনে পরীক্ষা নিতে হয়, সেটা আমরা কিভাবে নিব সে বিষয়টিও আমাদের একাডেমিক কাউন্সিলে সেটির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তবে তৎক্ষণাৎ তিনি কিছু পরিষ্কার বলতে পারছেন না যে বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়া হবে নাকি স্ব-শরীরে।

আর অন্যদিকে যুগের চাহিদায় তাল মিলাতে গিয়ে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার কথা ভাবছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডঃ মোঃ আক্তারুজ্জামান বলেন, প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহারের চেষ্টা আমরা করব। কীভাবে প্রযুক্তির সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা যায় সেটি আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) বলছে, অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মুনাস আহমেদ নুর এর নেতৃত্বে তৈরি সফটওয়্যার এর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছেন।

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞের মতে অনলাইনে পরীক্ষা নিলে নকল বা অন্য যে কোনো কারচুপি ঠেকানো বড় চ্যালেঞ্জ।

এ ব্যাপারে তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডক্টর মোহাম্মদ শফিউল আলম খান বলেন, অনলাইনে বিষয়টি যখন যাবে তখন এতে জালিয়াতির সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায় এবং এই জালিয়াতি ঠেকানো চ্যালেঞ্জিং।

উল্লেখ্য করোনা মহামারী শুরুর পর থেকেই বন্ধ দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। পাঠদান যতোটুকু চলছে তার সবটাই মূলত অনলাইন নির্ভর।

ওয়াইএইচ / বে অব বেঙ্গল নিউজ / Bay of Bengal news