নতুন চেলসির জয় দিয়ে শুরু

দলে নতুন যোগ দেয়া টিমো ওয়ার্নার এবং কাই হাভার্টসের ইংলিশ লিগে অভিষেক হয়েছে এ ম্যাচ দিয়েই। তবে সবার নজর কেড়েছেন ২০ বছর বয়সী জেমস। তার ২৫ মিটার দূর থেকে করা দুরন্ত গোলের মাধ্যমেই ২-১ গোলের লিড নেয় চেলসি। এর পর কার্ট জুমার গোলে তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করে ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।

তরুন রাইট ব্যাক রেক্কে জেমসের দুরন্ত এক গোলের সাহায্য নিয়ে চেলসি ৩-১ গোলে ব্রাইটন এন্ড হোভ অ্যালবিয়নকে পরাজিত করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চমৎকার সুচনা করেছে।

ওয়ার্নার বলেন, ‘ম্যাচ যখন ১-১ গোলে চলছিল তখন আমাদের জন্য কঠিন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল। এর পরই রেক্কের অসাধারণ গোলটি হয়। আজ এখানে জিততে পেরে আমরা খুশী। আমাদের অনেকেই ছন্দে ছিলাম না। কিন্তু আমি মনে কর একত্রে খেলতে খেলতে আমাদের মধ্যে বোঝা পড়া গড়ে উঠবে।’

ব্রাইটন ম্যাচের শুরুটা করেছিল বেশ ভালভাবেই। চেলসির সাথে তারা সমান তালে পাল্লা দিচ্ছিল। কিন্তু ২৩ মিনিটে গোলরক্ষকের ভুলে গোল খেতে হয় তাদের। গোলরক্ষক ম্যাট রায়ান পেনাল্টি বক্সের মধ্যে ওয়ার্নারকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় চেলসি। পেনাল্টি থেকে গোল করেন জর্জিনহো।

৩৫ মিনিটে গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালাগার দৃঢ়তায় গোল খাওয়া থেকে রক্ষা পায় চেলসি। স্টিভেন আলজাটের নেয়া শট দুই হাতে ঠেকিয়ে দেন কেপা। ব্রাইটন দমে না গিয়ে আক্রমণ অব্যাহত রাখে এবং এর পুরস্কারও পায় ৫৪ মিনিটে। লেনার্ডোর গোলে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা।

নতুন চেলসির জয় দিয়ে শুরু
ছবি:সংগৃহীত

তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন ২০ মিটার দূর থেকে আসা বলটি প্রতিহত করা উচিত ছিল গোলরক্ষক কেপার। অনেকেই মনে করেন চেলসিকে শিরোপা জিততে হলে কেপার বিকল্প গোলরক্ষক খুজতে হবে। যদিও ব্রাইটন খুব বেশী সময় এ অবস্থা ধরে রাখতে পারেনি। জেমসের গোলে দ্বিতীয়বারের মতো এগিয়ে যায় চেলসি।

তারপরই ব্রাইটনের ডিফেন্ডার লুইস ডাঙ্ক সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। যার খেসারত তারা দেয় ৬৬ মিনিটে তৃতীয় গোল হজম করে। জেমসের কর্নার থেকে জুমা গোল করলে ৩-১ গোলে এগিয়ে যায় চেলসি এবং তাদের জয় নিশ্চিত হয়।

স্টাফ রিপোর্টার/বে অব বেঙ্গল নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published.