সকল সংবাদআন্তর্জাতিকইউটিউবজাতীয়

(ভিডিও সহ) ৭ বছর বয়সী বাংলাদেশী বংশদ্ভূত মেধাবী ফাতিহা আয়াতের জাতিসংঘে ভাষণ

৭ বছর বয়সী বাংলাদেশী বংশদ্ভূত মেধাবী ফাতিহা আয়াতের জাতিসংঘে ভাষণ

জাতিসংঘে বৈশ্বিক উষ্ণায়য়ণ ও মানবাধিকার বিষয়ে বক্তব্য রাখার পরই ৭ বছর বয়সী ফাতিহা আয়াতকে দাঁড়িয়ে সংবর্ধনা (স্ট্যান্ডিং অভেশন) জানিয়েছিলেন সেমিনারে অংশগ্রহণকারী যা ভিডিওতে দেয়া আছে। সবাই রীতিমতো অবাক হয়ে গিয়েছিলেন এই ৭ বছর বয়সই বাংলাদেশী শিশুকে এত গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় দেখে। যেকিনা এই অবুঝ বয়সে বৈশ্বিক উষ্ণায়ণ ও মানকবাধিকার নিয়ে ভাবে। ঐ সেমিনারে সে বলেন, বৈশ্বিক উষ্ণায়ণ নিয়ে, বাংলাদেশের রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে যা মানবিধিকার লঙ্গনের একটি বিষয়।

তাকে যখন সাংবাধিকরা জিজ্ঞেস করে এই ছোট বয়সে তার এই বুঝ কেমনে আসল?
তার উত্তর ছিল ইংরেজীতে ও বাংলায় দুভাবেই, যদিও সে খুব ভাল বাংলা বলতে জানে। তার বক্তব্য তার মত করে তুলে ধরা হল, সে যখন নাকি আলস্কায় বাবা মায়ের সাথে বেড়াতে গিয়েছিল তখন সে সেখানে দেখতে পায় পাহাড় সমান হিমোবাহ থেকে বরফ খন্ড সাগরে ভেঙ্গে পড়ছে, সে উপলবফহি করে যে এই বরফ ভেঙ্গে গলে গেলেতো সমুদ্রের উচ্চতা বাড়বে। যা দেখে তার বাংলাদেশের মত সমতল ভুমির কথা মনে পড়ল।

বাংলাদেশী বংশদ্ভুত ফাতিহা আয়াত তার বাবা মায়ের সাথে যুক্ত্রাষ্ট্রের নিউইয়র্কে থাকে। তার স্কুলে সে গিফটেড এবং টেলেন্টেড প্রোগ্রামের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র। ফাতিহা আয়াত আরও জানায়, বাসায় সে নিয়মিত বাংলা চর্চা করে। সে ইয়াং পিউপলস ফেস্টিবেল ২০১৮ তে বাংলা লেখায় সে প্রথম হয়, নজরুল মেলাতে সে বাংলা কবিতা আবৃতিতে প্রথম হয়। সে বয়েস অব এমেরিকা বাংলা ও বিবিসি বাংলা প্রতিদিন রাতে শুনে। সে প্রতি সপ্তাহে বাংলা মুভি দেখে। টিভিএন টুয়ান্টি ফোরে তার ইন্টারভিউ হয়েছিল সে বাংলায় কথা বলে।

তার খুব ইচ্ছা জাতিসংঘে পরবর্তী অধিবেশনে বাংলায় সে কথা বলবে। তার দেশকে সে রিপ্রেজেন্ট করবে বিশ্ব দরবারে।

ডব্লিউ বি বি ও / বে অব বেঙ্গল নিউজ / স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *