আইপিএলের প্রস্তাবে রাজি হননি মোস্তাফিজ

আইপিএল খেলতে মোস্তাফিজকে প্রস্তাব দিয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও কলকাতা নাইট রাইডার্স। মুম্বাই লাসিথ মালিঙ্গার জায়গায় পরে নিয়েছে জেমস প্যাটিনসন।

কলকাতা অবশ্য এখনো হ্যারি গার্নির বিকল্প খুঁজে পায়নি। বাঁহাতি ইংলিশ পেসারের জায়গায় একজন বাঁহাতি পেসার হিসেবে মোস্তাফিজকেই পছন্দ ছিল কলকাতার। কিন্তু সেটি তাদের পাওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

আইপিএলের প্রস্তাবে রাজি হননি মোস্তাফিজ
মোস্তাফিজ।

মোস্তাফিজুর রহমান মার্চেই প্রস্তাব পেয়েছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আইপিএল খেলার। কোভিড-১৯ মহামারিতে সঠিক সময়ে আইপিএল না হওয়ায় রাজস্থানে খেলার প্রস্তাবটা কাজে লাগাতে পারেননি।

মোস্তাফিজের সামনে আবারও সুযোগ এসেছিল আইপিএল খেলার। এ মাসে বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফর থাকায় এ প্রস্তাবেও রাজি হওয়া সম্ভব হচ্ছে না বাঁহাতি পেসারের।

মোস্তাফিজ বললেন, ‘দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি থেকে প্রস্তাব পেয়েছিলাম। কিন্তু একই সময়ে আমাদের শ্রীলঙ্কা সফর আছে। ওরা বিসিবির কাছে জানতে চেয়েছিল, আমাকে আইপিএলে পাওয়া সম্ভব কিনা। বিসিবি তাদের জানিয়ে দিয়েছে যে, এই সময়ে আমরা শ্রীলঙ্কা সফরে যাব, আমাকে পাওয়া সম্ভব নয়।’


সর্বশেষ আইপিএল নিলামে মোস্তাফিজের ভিত্তিমূল্য ছিল ১ কোটি রুপি। কোটি টাকার প্রস্তাবের চেয়ে মোস্তাফিজের কাছে প্রাধান্য পাচ্ছে বাংলাদেশ দলের আসন্ন সিরিজ, ‘আমার কাছে বাংলাদেশ দল সবার আগে। আমার ভাবনায় এখন শুধুই শ্রীলঙ্কা সফর। সামনে এমন সুযোগ আশা করি আরও আসবে।’

করোনার কারণে আইপিএলের ত্রয়োদশ পর্বটা হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ভারতের জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট শুরু ১৯ সেপ্টেম্বর, যেটির ফাইনাল ১০ নভেম্বর।

বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কায় রওনা দেবে ২৭ সেপ্টেম্বর। লঙ্কানদের বিপক্ষে তিন টেস্টের সিরিজ শুরু ২৩ অক্টোবর। বাংলাদেশ দেশে ফিরবে ১৩ নভেম্বর। এই সময়ে বাংলাদেশের সিরিজ থাকায় স্বাভাবিকভাবে আইপিএলের প্রস্তাবে রাজি হননি মোস্তাফিজ।

স্টাফ রিপোর্টার/বিবিএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *