চমেকে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ জন

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে (চমেক) ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় ২ জন বহিরাগতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত দুজনই শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের অনুসারী বলে জানা যায়।
চমেকে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ জন
চমেকে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ জন

রবিবার (২ মে) বিকেলে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া। 

গত বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) চমেক হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. হাবিবুর রহমানের দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া দুজন ওই মামলার ১০ নং আসামি রবিউল ইসলাম রাজু ও ১২ নং আসামি হানিফ। ডা. হাবিবুর রহমান  সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী বলে জানা যায়।

প্রসঙ্গত গত বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে চমেক ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি ও হাসপাতালের ইন্টার্ন ডা. হাবিবুর রহমান নগরীর পাঁচলাইশ থানায় বাদি হয়ে ১৩ জনকে নাম উল্লেখ ও ৭০-৮০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। 

এ মামলায় আসামিরা হলেন- মুশফিকুর ইসলাম আরাফ, ইয়াসিন আওরাজ ভূঁইয়া রওনক প্রকাশ ভূঁইয়া রনক, অভিজিৎ দাশ, মো. রিয়াজুল ইসলাম, তৌফিকুর রহমান, সৌমিক বড়ুয়া, আতাউল্লাহ বুখারী, এইচ এম ফজলে রাব্বি সুজন, সুভাষ মল্লিক সবুজ, সাদ্দাম হোসেন ইভান, রবিউল ইসলাম রাজু, মোহাম্মদ হানিফ ও জিয়াউদ্দিন আরমান।

এদিকে দুপক্ষের সংঘর্ষের জের ধরে গত ৪ দিন ধরে চমেক হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা  কর্মবিরতি পালন করে। পরে ৭ দফা দাবি মানার শর্তে রবিবার তারা কাজে ফিরেন।

Bay of bengal news / বে অব বেঙ্গল নিউজ