বিনোদনসকল সংবাদ

পরলোক গমন করলেন ভারতের জনপ্রিয় দক্ষিণি অভিনেতা জয় প্রকাশ রেড্ডি

আজ সকালে ভারতের জনপ্রিয় দক্ষিণি অভিনেতা জয় প্রকাশ রেড্ডি চলে যান না ফেরার দেশে। মঙ্গলবার সকালে অন্ধ্র প্রদেশের গুন্টুরে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

জয় প্রকাশ রেড্ডি, নামে হয়তো তাঁকে এ দেশের দর্শক হুট করে চিনবেন না। কিন্তু ছবিটা দেখলে চিনবেন খুব সহজেই। আচমকা বলে উঠবেন, ‘আরে, তাঁকে তো অনেক ছবিতে দেখেছি!’ সত্যি তাই, জয় প্রকাশ রেড্ডি এমন একজন চরিত্রাভিনেতা, যাঁকে অসংখ্য ভারতীয় ছবিতে দেখা গেছে। বিশেষ করে দক্ষিণ ভারতীয় ছবিতে তাঁর ছিল বর্ণাঢ্য চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার।

জয় প্রকাশ রেড্ডি।

বিভিন্ন ভারতীয় গণমাধ্যম ও টুইটার সূত্রে জানা গেছে, জয় প্রকাশ রেড্ডি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। যিনি চরিত্রাভিনেতা ও কমেডিয়ান হিসেবে বিভিন্ন চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। ছিলেন আল্লাগাড্ডার বাসিন্দা।

তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের একটা আলাদা পরিচিতি গড়ে তুলেছিলেন তিনি। তাঁর প্রয়াণের খবর শুনে শোকের ছায়া নেমে আসে তেলেগু ছবির জগতে। তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন অভিনেতা মহেশ বাবু। তিনি টুইটে লিখেছেন,

‘হঠাৎ চলে গেলেন জয় প্রকাশ রেডি, গুরু। তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সেরা অভিনেতা-কৌতুক অভিনেতা। তাঁর সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা মনে থাকবে আজীবন। তাঁর পরিবার ও প্রিয়জনদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা।’

১৯৪৬ সালে অন্ধ্র প্রদেশের সিরভেল জেলায় জন্ম জয় প্রকাশ রেড্ডির। ১৯৮৮ সালে ভেঙ্কটেশ অভিনীত ছবি ‘ব্রহ্মা পুত্রুদু’র মাধ্যমে সিনেমাজগতে প্রবেশ করেন।

জয় প্রকাশ রেড্ডি।

পরিচিতি পান তেলুগু ব্লকবাস্টার ‘সমরসিমহা রেড্ডি’ সিনেমায় বীরা রাঘব রেড্ডির চরিত্রে অভিনয় করে। তিন দশকের বেশি অভিনয়জীবনে ১০০টির বেশি তেলেগু ও তামিল সিনেমায় অভিনয় করেছেন জয় প্রকাশ। খল চরিত্রের পাশাপাশি তাঁর কৌতুকাভিনয়ও দর্শকদের পছন্দ হয়েছে। শেষ মহেশ বাবু অভিনীত ‘সারিলেরু নিকেভারু’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন জয় প্রকাশ রেড্ডি।

এমনিতে এ বছর ভারতের বিনোদনজগতের ক্ষেত্রে মোটেও ভালো যাচ্ছে না। করোনা সংকটের জেরে দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ। নতুন স্বাভাবিকে ধীরে ধীরে সব শুরু হলেও নানান বিধিনিষেধ মেনে কাজ করতে হচ্ছে। সিনেমা হলগুলো এখনো খোলার অনুমতি পায়নি।

এরই মধ্যে একের পর এক মৃত্যুসংবাদ এসে চলেছে। ইরফান খান, ঋষি কাপুর থেকে সুশান্ত সিং রাজপুত। একের পর এক মৃত্যুশোক সিনেমাপ্রেমীদের ভারাক্রান্ত করেছে। মঙ্গলবার সকালে জয় প্রকাশের চলে যাওয়া শোকের মিছিলকে আরও দীর্ঘ করেছে।

স্টাফ রিপোর্টার/বে অব বেঙ্গল নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *