জাতীয়রাজনীতিসকল সংবাদ

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি হোক এটা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চাই: মাহবুবুল আলম হানিফ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের এক ফেইসবুক ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, সম্প্রতিকালে ধর্ষণের কয়েকটি ঘটনায় গোটা জাতি উদ্বিগ্ন এবং এটি নিয়ে মানুষের মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আমরাও মনে করি বর্তমানে যে সামাজিক বা মানবিক এবং নৈতিকতার যে অবক্ষয় এ অবক্ষয়ের বড় একটা কারণ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। কিন্তু এই ধর্ষণের সর্বোচ্চ  দাবি করে যে আন্দোলন হচ্ছে এ আন্দোলনের ব্যাপারে আমরা সুস্পষ্ট একটা বিষয় জানিয়ে দিতে চাই ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি হোক এটা আমরা চাই, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীসহ দেশের সকল মানুষই চায় শাস্তি হোক। 

এমনকি সর্বোচ্চ  শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হোক এটা আমরাও দাবি করেছি। ইতিমধ্যেই আমাদের সরকারের প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দেয়া এবং এ ব্যাপারে আইনের যথাযথ ভাবে সংশোধন করে সাক্ষ্য আইন সংশোধন করে আগামী সোমবার কেবিনেটে উপস্থাপন করতে নির্দেশ দিয়েছেন। সেই হিসেবে আমরা আশা করি যে আগামী সোমবারে এটি কেবিনেটে উপস্থাপন হবে এবং তার ভিত্তিতে আগামী সংসদে আইনটা পাশ হবে। 

বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পরে এই ধর্ষণের বিরুদ্ধে এবং সকল অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই যে সমস্ত ঘটনা ঘটেছে প্রত্যেকটা ঘটনার বিরুদ্ধে সরকার কিন্তু কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। আমরা যদি দেখি ফেনী ফুলগাজীতে যে ধর্ষণের স্বীকার হয়েছিল সেই ধর্ষণে ১৭ জনকে ফাঁসি দেয়া হয়েছে। 

আমাদের প্রত্যেক পরিবারের, প্রত্যেক পিতামাতার দায়িত্ব হচ্ছে আপনার ঘরের সন্তানের আগে নজর রাখুন। আপনার সন্তান কি করছে, তারা কখন কার সাথে মিশছে বা তাদের চাল চলন হচ্ছে, তারা কোন মাদকের সাথে সংযুক্তি হচ্ছে কিনা, কোন অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত হচ্ছে কিনা এটার দিকে আপনারা নজর দিন। 

আপনারা ঘর থেকে যদি আপনাদের সন্তানদের সঠিকভাবে, আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন তাহলে আপনার পরিবার থেকেই একটা সমাজ আদর্শ মানুষ দাঁড়াই গঠিত হবে এবং সেখানে মানুষের মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠিত হবে।